দুই দশক পর ফের চালু হচ্ছে কাজিরহাট-আরিচা ফেরি

অবশেষে সুখবর পাচ্ছেন পাবনাবাসী। প্রায় দুই দশকের অধিক সময় পর চলতি মাসের শেষেই চালু হতে যাচ্ছে বন্ধ হয়ে যাওয়া পাবনার কাজিরহাট-আরিচা নৌরুটে ফেরি চলাচল। দ্রুতগতিতে ঘাট মেরামতের কাজ চলছে। ফলে মাত্র দেড় ঘণ্টায় নদী পার হওয়ার আশায় আনন্দিত পাবনাসহ উত্তরাঞ্চলের সিংহভাগ মানুষ। ইতোমধ্যে নৌরুটটি পরিদর্শন করেছেন সরকারের উচ্চপর্যায়ের কমিটি। অল্প সময়ে ঢাকা যেতে পাবনা, নাটোরসহ উত্তরাঞ্চলের প্রায় ১০টি জেলার লাখ লাখ মানুষ প্রতিনিয়ত ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে চড়ে মানিকগঞ্জের আরিচা পারাপার হচ্ছে। তাদের মতে, বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে সড়কপথে পৌঁছাতে যেখানে ৬-৭ ঘণ্টা সময় লাগে, নদীপথে সেখানে লাগে মাত্র ৩-৪ ঘণ্টা।

পাবনাসহ উত্তরাঞ্চলবাসীর এ ভোগান্তির কথা বিবেচনায় প্রায় ২০ বছর পর কাজিরহাট-আরিচা ফেরি রুটটি চালু করতে যাচ্ছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, ১৪ কিলোমিটার দীর্ঘপথটির দুই পাড়ের ঘাট তৈরির কাজ প্রায় শেষ। সরকারের এমন উদ্যোগে আশায় বুক বেঁধেছেন পাবনার যাত্রীরাও।

বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক জানান, ফেরিতে এ পথ পাড়ি দেওয়া যাবে ১ থেকে দেড় ঘণ্টায়। চলতি মাসের ২০ তারিখেই রুটটি চালুর আশা তার। তিনি জানান, আপাতত ৪টি ফেরি চলাচল করবে। পদ্মা সেতু চালুর পর এ সংখ্যা বেড়ে যাবে। তবে যমুনা নদীতে ২০ থেকে ২৫টি চর ও প্রচ- নাব্য সংকট মোকাবিলা করে রুটটি সচল রাখা সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

স্থানীয় মানুষ জানান  ফেরি চলাচল শুরু হলে ঢাকায় যেতে আমাদের সময় যেমন বাঁচবে, তেমনি অর্থের অপচয়ও কম হবে। তাদের মতে, সকালে ঢাকায় গিয়ে অফিসের কাজ শেষে বিকালের মধ্যে আবার ফিরে আসা সম্ভব হবে ফেরি চালু হলে।