Tuesday, February 27, 2024
Homeদেশ-জুড়েঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লড়াই হবে জাপা-ওয়ার্কাসের দুই পার্থীই বিজয়ের স্বপ্ন দেখছেন আ'লীগের উপর...

ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লড়াই হবে জাপা-ওয়ার্কাসের দুই পার্থীই বিজয়ের স্বপ্ন দেখছেন আ’লীগের উপর ভর করে

ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে লড়াই হবে জাপা-ওয়ার্কাসের
দুই পার্থীই বিজয়ের স্বপ্ন দেখছেন আ’লীগের উপর ভর করে
মাহাবুব আলম,রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি।।
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও -৩ আসনে নির্বাচনী উত্তাপ তেমন ছড়িয়ে পড়েনি। তবে অন্য আসন দুইটি তে প্রার্থীদের প্্রচার-প্রচারণায় খৈ ফুটছে । ভোটাদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। সভা-সমাবেশ উঠান বৈঠক করে দিচ্ছে নানা প্রতিশ্রুতি। কিন্তু ভোট নিয়ে তেমন আগ্রহ নেই সাধারণ ভোটাদের। ঠাকুরগাঁও-৩ আসনটিজোট-মহাজোটের সমীকরণে নির্বাচন হওয়ায় প্রতিবারই ছাড় দিতে হচ্ছে আওয়ামীলীগকে।এবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি।
এ আসনে এবার তিনটি রাজনৈতিক দল ও একজন নারী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটের মাঠে অবতীর্ণ হয়েছেন। তবে আসনটিতে শক্ত লড়াই হবে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী হাফিজউদ্দিন আহম্মেদ ও ওর্য়ার্কাস পার্টির গোপাল চন্দ্র রায়ের।
এলাকায় ঘুরে জানা গেছে, ভোটের মাঠে কেউ জাপার প্রার্থী হাফিজউদ্দিনের পক্ষে। আবার কেউ কেউ ওর্য়ার্কাস পার্টির গোপাল চন্দ্র রায়ে’র পক্ষ নিয়েছেন। স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে দ্বাদ্শ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায় গোপাল চন্দ্র রায় বিজয়ী হতে পারে ।
একাদশ নির্বাচনের বিএনপির এমপি জাহিদুর রহমান পদত্যাগের পর ঠাকুরগাঁও-৩ আসনটি শুন্য হয় । এর আগেও গোপাল চন্দ্র রায় ভোট যুদ্ধে অংশ নেন । সর্বশেষে ২০২৩ সালের ১ফেব্রæয়ারি অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তিনি ভোটের মাঠে লড়াই করেন । তবে এই নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হাফিজউদ্দিন আহমেদ ৮৪ হাজার ৪৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। আর গোপাল চন্দ্র রায় ভোট পেয়েছিলেন ৫১ হাজার । তবে এবার তিনি ওর্য়ার্কাস পার্টির হাতুড়ী নিয়ে আবারও প্রার্থী হয়েছেন। জাপা এবং ওর্য়ার্কাস পার্টির দুই প্রার্থীই আওয়ামীলীগের উপর ভর করে বিজয়ের স্বপ্ন দেখছেন বলে এমন মন্তব্য অনেকেই।
স্থানীয় সংবাদকর্মী প্রেসক্লাব সভাপতি মোবারক আলী জানান, অধ্যাক্ষ গোপাল চন্দ্র রায়ের নিজ ঘোরানার এক গুচ্ছ ভোট রয়েছে। এর পাশাপাশি আওয়ামীলীগের সিংহভাগ নেতাকর্মী যদি তার দিকে ঝুঁকে পড়েন তাহলেই তার জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। জাতীয় পাটির প্রার্থী হাফিজউদ্দীন আহম্মেদের রয়েছে ব্যাক্তিগত জন প্রিয়তা আওয়ামীলীগের একাংশ ভোট পেলেই বিজয়ের হাসি হাসবেন জাতীয় পার্টি। এই দুই প্রার্থী ছাড়াও নির্বাচনের মাঠে রয়েছেন বিকল্প ধারার খলিলুর রহমান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আশা মনি।
আগামী ৭ জানুয়ারি ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ আসনটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৩ শ ৫৪ জন এর মধ্যে পুরুষ ১ লাক্ষ ৭৪ হাজার ৯৬৬ জন এবং মহিলা ১ লাক্ষ ৬৯ হাজার ৩ শত ৮৮ জন । ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা -১২৮ টি ।
RELATED ARTICLES
Continue to the category

Most Popular